এই দিন

রোববার   ০১ নভেম্বর ২০২০   কার্তিক ১৬ ১৪২৭   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

১১১

প্রসেনজিৎ-যীশু-অনুপম-পরমব্রতরা প্রেম করে কাজগুলো পেয়েছেন?

প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২০  

অভিনেত্রী শ্রীলেখা সম্প্রতি এক ভিডিও বার্তায় টলিউডে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ এনেছেন। প্রসেনজিৎকে নাম্বার ওয়ান গডফাদার বলেছেন। এছাড়া আরও অনেক অভিনয়শিল্পী ও নির্মাতার বিরুদ্ধে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ করেছেন তিনি। শ্রীলেখার দাবি প্রেমের সম্পর্কের কারণেই সৃজিত অভিনেত্রী স্বস্তিকাকে তার ছবিতে নিয়েছিলেন।

শ্রীলেখার অভিযোগের কড়া জবাব দিয়েছেন স্বস্তিকা। শনিবার ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, যখন কোন অভিনেত্রী কোন পরিচালকের সঙ্গে এক বা একের বেশি ছবি করে তখন বলা হয় সে শুয়ে বা প্রেম করে কাজটা পেয়েছে। বেশ। তা আমি এক পরিচালকের সঙ্গে তার জীবনের ১৭টা ছবির মধ্যে আড়াইখানা ছবি করেছি (২টি মুখ্য চরিত্র, ১টি অতিথি শিল্পী)।

কিন্তু যেহেতু এই পরিচালকের সঙ্গে সৌমিক হালদার ১১টা, অনুপম রায় ৯টা, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ৭টা, যীশু সেনগুপ্ত ৭টা, অনির্বাণ ভট্টাচার্য ৬টা এবং পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ৬টা কাজ করেছেন, তারা নিশ্চয় আরো বেশি করে শুয়ে আর প্রেম করে কাজগুলো পেয়েছেন? এনারা তাহলে সবাই উভকামী ও সুযোগসন্ধানী? যুক্তি তো সবার ক্ষেত্রেই এক হওয়া উচিৎ, তাই না? নাকি নিজের খামতি ঢাকতে স্লাটশেমিং শুধু আমাদের মত 'কুযোগ্য' অভিনেত্রীদের করা হবে যারা একেবারেই অভিনয়টা পারে না?